একটি আদিবাসী বিয়ের গল্প

কনে রূপনা মানখিনের বাড়িতে বর অনুপ নকরেকের প্রবেশ। জলছত্র, মধুপুর ছবিঃ অজিত দাশ / ম্যাগডিলিনা মৃ

কনে রূপনা মানখিন এর বাড়িতে বর অনুপ নকরেক

বর পক্ষ, আত্মীয়-স্বজন এবং প্রতিবেশীদের নিমন্ত্রণের জন্য বেঁধে রাখা শুকর ১০/১৩/২০১৬

কনের বাড়িতে বিয়ের নিমন্ত্রণে আপ্যায়নের জন্য আত্মীয়দের পক্ষ থেকে দেওয়া আস্ত শুকর ১০/১৩/১৬, জলছত্র, মধুপুর

শুকরমাংস রান্নার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে। জলছত্র, মধুপুর ১০/১৩/১৬

শুকরের মাথার লোম ছাড়ানো হচ্ছে। জলছত্র, মধুপুর

আগুণে পুড়ানো হচ্ছে আস্ত শুকর, কনে বাড়ি, জলছত্র, মধপুর

শুকর মাংস কাটা হচ্ছে। কনে বাড়ি, জলছত্র, মধুপুর

শুকরের তেল সংগ্রহ করা হচ্ছে।

বিয়ের নিমন্ত্রণে সহযোগীতা করার জন্য নিয়ে আসা আত্মীয়-স্বজনদের প্রয়োজনীয় উপকরণ।

চাউল এবং কলাপাতায় মোড়ানো অন্যান্য প্রয়োজনীয় উপকরণ

গারোদের প্রধাণ পানীয় চু (ধেঁনুপচুই মদ)

বরের বাড়িতে খগ নিয়ে প্রবেশ করছেন এক আত্মীয়।

কনের বাড়িতে চু বিচ্চি সংগ্র করা হচ্ছে ঝাঞ্চির মাঝখান থেকে

আত্মীয়-স্বজনদের নিয়ে আসা গারোদের প্রধান পানীয় চু

পুরুষদের চু’র আসর। কনে বাড়ি, জলছত্র, মধুপুর

নারীদের চু’র এর আসর। কনে বাড়ি, জলছত্র, মধুপুর।

বড় অনুপ নকরেক এর বাড়িতে গায়ে হলুদ। গায়রা, মধুপুর

বর অনুপ নকরেক এর গ্রামে গীর্জায় যাওয়া হচ্ছে।

গীর্জা প্রস্তুতের কাজে চলছে।

গীর্জা প্রস্তুতের কাজ চলছে

কীর্তনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে সবাই

গীর্জার জন্য অর্থ সংগ্রহ করছে এক শিশু

বর অনুপ নকরে-রূপনা মানখিন প্রস্তুত হচ্ছেন বিয়ের মন্ত্র পড়ার জন্য

পুরোহিত এর সঙ্গে মন্ত্র পড়ে করমর্দন করছেন বর-কনে

বর অনুপ নকরেক ও কনে রূপনা মানখিন মন্ত্র পড়ছেন

মালাবদল করছেন বর-কনে

বর-কনে করমর্দন করছেন

বিয়ে পরবর্তী প্রসাদ নিচ্ছেন বর-কনে

বর-কনেকে মালা পড়িয়ে দিচ্ছেন তাদের বাবা-মা

পরিবারের সঙ্গে বর-কনে

যুগল মালা পরিহিত হাস্যোজ্জ্বল নবদম্পতি অনুপ নকরেক-রূপনা মানখিন

 

 

Facebook Comments

comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

scroll to top